শনিবার, জুন ১৫, ২০২৪

১ আষাঢ় ১৪৩১

শনিবার, জুন ১৫, ২০২৪
১ আষাঢ় ১৪৩১
সরকারি রেজিস্ট্রেশন নম্বর- ১৮২
আপনি পড়ছেন : সিলেট

চাহিদা ৩ লাখ ৯৪ হাজার ২৫১, প্রস্তুত সাড়ে ৪ লাখ

সিলেটে ঘাটতি নেই কোরবানির পশুর


ডেস্ক রিপোর্ট
2024-06-11 13:15:15
সিলেটে ঘাটতি নেই কোরবানির পশুর

পবিত্র ঈদুল আজহার আর মাত্র কয়েক দিন বাকি। সিলেট বিভাগে এবার ঘাটতি নেই কোরবানির পশুর। চাহিদার চেয়ে বেশি পশু কোরবানির জন্য প্রস্তুত রয়েছে। পর্যাপ্ত গরু-ছাগল কোরবানির জন্য প্রস্তুত থাকলেও ভারতীয় গরু নিয়ে দুশ্চিন্তায় রয়েছেন খামারিরা। সিলেটের বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে অবাধে গরু-মহিষ আসায় ঈদের বাজারে কোরবানির পশুর ন্যায্যমূল্য পাওয়া নিয়ে শঙ্কিত তারা।

সিলেট বিভাগীয় প্রাণিসম্পদ অফিস সূত্র জানায়- বিভাগে এবার কোরবানিতে ৩ লাখ ৯৪ হাজার ২৫১টি পশুর চাহিদা রয়েছে। আর বিভাগজুড়ে কোরবানিযোগ্য পশু রয়েছে ৪ লাখ ৩০ হাজার ৩৯৭টি। এর মধ্যে ১ লাখ ৩৮ হাজার ১৮০টি ষাঁড়, ৪৯ হাজার ১০৩টি বলদ, ৩৩ হাজার ৩৭৫টি গাভি, ৪ হাজার ৫৩৩টি মহিষ, ১ লাখ ৩৪ হাজার ১৪৩টি ছাগল, ৭০ হাজার ৯৫৩টি ভেড়া ও ১১০টি অন্যান্য পশু। অর্থাৎ দেশি পশু দিয়ে কোরবানি দিলেও চাহিদা পূরণ করে সিলেট বিভাগে উদ্বৃত্ত থাকবে ৩৬ হাজার ১৪৬টি।

প্রাণিসম্পদ সূত্র আরও জানায়- বিভাগের মধ্যে সবচেয়ে বেশি পশু কোরবানির চাহিদা ও মজুত রয়েছে সিলেট জেলায়। সিলেট জেলায় এ বছর কোরবানির জন্য ১ লাখ ৫০ হাজার ৭০৯টি পশুর চাহিদা রয়েছে। আর জেলায় প্রস্তুত আছে ১ লাখ ৮০ হাজার ৯২১টি পশু। এর মধ্যে ৬১ হাজার ৫৪০টি ষাঁড়, ৩২ হাজার ৪টি বলদ, ৬ হাজার ১৫১টি গাভি, ২ হাজার ৩৯২টি মহিষ, ৫৬ হাজার ৯২টি ছাগল, ২২ হাজার ৭৩৭টি ভেড়া ও অন্যান্য পশু ৫টি। কোরবানির চাহিদা পূরণ করেও জেলায় ৩০ হাজার ২১২টি পশু উদ্বৃত্ত থাকবে। এছাড়া এবার কোরবানির জন্য সুনামগঞ্জে ৬২ হাজার ৬৮৮টি, হবিগঞ্জে ১ লাখ ২ হাজার ৯৭৬টি ও মৌলভীবাজারে ৮৩ হাজার ৮১২টি পশু প্রস্তুত রয়েছে। বিভগের কোনো জেলায়ই কোরবানির পশুর সংকট নেই বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তারা। 

এ প্রসঙ্গে সিলেট বিভাগীয় প্রাণিসম্পদ অফিসের পরিচালক ডা. মারুফ হাসান বলেন, ‘এবার এ বিভাগে কোরবানিযোগ্য পশুর কোনো ঘাটতি নেই। বরং উদ্বৃত্ত আছে ৩৬ হাজার ১৪৬টি পশু। বিগত কয়েক বছরের মতো এবারও সিলেট বিভাগে পশুর উৎপাদন বেড়েছে।’